প্রচ্ছদ / সিলেট / বিস্তারিত
 

For Advertisement

600 X 120

সুনামগঞ্জে মাটি চাঁপায় ২ নারী শ্রমিক নিহত

১২ এপ্রিল ২০১৮, ৪:২৮:০৭
ঢাকা, ১২ এপ্রিল, কারেন্ট নিউজ বিডি : সুনামগঞ্জের সদর উপজেলার ডলুরায় সীমান্তবর্তী চলতি নদীর তীরে গর্তে মাটি চাঁপায় ২ নারী পাথর শ্রমিক নিহত হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সকালে পাথর উত্তোলন করতে গিয়ে খোঁড়া গর্তের ওপর থেকে মাটি ধ্বসে নারী শ্রমিকরা নিহত হন। এলাকাটি ২৮-বর্ডারগার্ড ব্যাটালিয়ন ডলুরা বিওপির বিজিবি নিয়ন্ত্রিত এলাকা বলে স্থানীয় লোকজন নিশ্চিত করেন।

নিহতরা হলেন- সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নের ফেনী বিল গ্রামের চাঁন মিয়ার স্ত্রী রহিমা খাতুন (৩৫) ও পার্শ্ববর্তী গুচ্ছ গ্রামের তাজু মিয়ার স্ত্রী আলেয়া বেগম (৩২)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার সীমান্তবর্তী ডলুরায় চলতি নদীর পুর্ব তীরে খোঁড়া গর্ত থেকে পাথর উত্তোলন করতে গেলে সকাল ৮ থেকে সাড়ে ৮টার মধ্যে গর্তের ৫০ ফুট ওপর থেকে মাটি ধ্বসে চাঁপা পড়ে নারী পাথর শ্রমিক রহিমা ও আলেয়া বেগম গর্তের ভেতরই নিহত হন। একই সময়ে ওই গর্তে পাথর উত্তোলন কাজে আরো ৫ জন নারী-পুরুষ শ্রমিক গর্তের অন্যপাশে থাকায় তাদের কেউ হতাহত হননি।

পরে আশে পাশে থাকা অন্যান্য গর্তের শ্রমিক ও সর্দাররা দু’নারী শ্রমিকের লাশ মাটি কেটে উদ্ধার করে সকাল ১০টার দিকে নিহত রহিমার লাশ তার বাবার বাড়ি বিশ্বম্ভরপুরের পশ্চিম ডলুরায় ও আলেয়ার লাশ তার গুচ্ছ গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় বিষয়টি ধামাচাঁপা দিতে। খবর পেয়ে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ ও জেলা প্রশাসনের একজন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট দুপুরে ঘটনাস্থলে পৌঁছেন।

অভিযোগ রয়েছে চলতি নদীর জিরো পয়েন্ট লাগোয়া পুর্ব তীর ঘেঁষে ও নদীর মাঝখানে অবৈধভাবে কমপক্ষে ৩০ থেকে ৩৫টি ছোট বড় পুকুরের ন্যায় গভীর গর্ত তৈরী করে গত ৬ মাসের বেশী সময় ধরে কয়েকটি সিন্ডিকেট পাথর উত্তোলন কাজে এলাকার হত দরিদ্র ৫ থেকে ৬শ’ নারী পুরুষ শ্রমিককে ব্যবহার করছেন নামমাত্র মজুরি দিয়ে।

মঙ্গলবার বেলা দেড়টায় নদীর তীরে পাথর গর্তে মাটি ধ্বসে মাটি চাঁপায় ২ নারী পাথর শ্রমিক নিহত হওয়ার সত্যতা স্বীকার করেছেন সুনামগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ।

 

For Advertisement

600 X 120

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: