প্রচ্ছদ / খুলনা / বিস্তারিত
 

For Advertisement

600 X 120

কোচিং না করায় ছাত্রীকে পোশাক খুলতে বললেন শিক্ষক

৯ এপ্রিল ২০১৮, ৪:০১:৪১

ঢাকা, ০৯ এপ্রিলকারেন্ট নিউজ বিডি : শিক্ষার্থীদের অবৈধভাবে জোরপূর্বক কোচিং করানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। কোচিং না করলে তাদের বিদ্যালয় থেকে বের করে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন শিক্ষকরা। ঘটনাটি ঘটে কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আলসালেহ্ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে।

বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানায়, আমরা বিদ্যালয়ে আসলে প্রধান শিক্ষিকার নির্দেশে সহকারী শিক্ষক রাশেদুল ইসলাম আমাদের কোচিং করানোর জন্য চাপ দেন। কোচিং করতে না চাইলে আমাদের বিদ্যালয় থেকে বের হয়ে যেতে বলেন।

আমরা বিদ্যালয় থেকে বের হতে চাইলে আমাদের পোশাক খুলে রেখে যেতে বলেন, কারণ এই পোশাক বিদ্যালয়ের দেয়া। আমরা তখন বলি স্যার পোশাক বাড়ি থেকে খুলে নিয়ে আসছি। তখন স্যার বলেন, না এখনি খুলে দাও।

বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা আরো জানায়, রাশেদুল ইসলাম শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সর্বদা খারাপ আচরণ করেন। এ নিয়ে এক অভিভাবক ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

ওই অভিভাবক আরো বলেন, আমরা গরিব মানুষ। ছেলে-মেয়েদের স্কুলে পাঠাই লেখাপড়া শেখার জন্য, এভাবে স্কুলের স্যারেরা কোচিং করার জন্য চাপ দিলে আমাদের পক্ষে ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়া বন্ধ করে দেয়া ছাড়া উপায় থাকবে না। তার অভিযোগ, মেয়ে শনিবার কোচিং করতে চায়নি বলে পোশাক খুলে রেখে যেতে বলেছে শিক্ষক রাশেদুল।

তবে এসব বিষয়ে জানতে চাইলে আলসালেহ্ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা হয়েছে। আশেপাশে প্রায় বিদ্যালয়ে কোচিং চলছে, কিন্তু আমরা করতে চেয়েছি, তাহলে দোষের কি?

প্রতি শিক্ষার্থীর কাছ থেকে জোরপূর্বক কোচিং বাবদ ৬০০ টাকা করে নিয়ে ১ ঘণ্টা কোচিং করানোর বিষয়ে প্রধান শিক্ষিকা বলেন, গণিত ক্লাসে বিভিন্ন রকম অংক আছে, ছাত্র-ছাত্রীরা বুঝতে পারে না বলে কোচিংয়ের মাধ্যমে বোঝানো হয়।

দৌলতপুর মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নাজমুল হক বলেন, কোচিং করানোর বিষয়ে সরকারি কোনো নিয়ম নেই এবং নিজ বিদ্যালয়ের শিক্ষক বিদ্যালয়ে কোচিং করাচ্ছে এটা অন্যায়।

বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌফিকুর রহমান বলেন, আমিও এমন অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

For Advertisement

600 X 120

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: